সদ্য সংবাদ

  করোনায় পুলিশের ‘বীরত্বগাঁথা’ নিয়ে বই  মিয়ানমার থেকে এলো ২০ টন পেঁয়াজ  আড়াইহাজারে গাঁজার চাষ, দুই সহোদর আটক  এই সরকারকে সরাতে হবে: মির্জা ফখরুল   ইউএনও ওয়াহিদাকে ওএসডি, স্বামীকে বদলি   মসজিদে বিস্ফোরণ: তিতাসের চার প্রকৌশলীসহ ৮ জন রিমান্ডে  বিশ্বে ভয়ংকর দুর্ভিক্ষ আসছে, ক্ষুধায় মরবে ৩ কোটি মানুষ!  আল্লামা শফীর জানাজায় জনতার ঢল, লাখো মানুষের চোখে পানি  মসজিদ বিস্ফোরণে ঘটনায় তিতাসের ৮ কর্মকর্তাকে গ্রেফতার করেছে সিআইডি।  ইউএনও ওয়াহিদার বাসায় টাকা ছিল ৪০ লাখ, সেই মালি নেয় ৫০ হাজার   ‘তিশা প্লাস’ বাসের দরজা-জানালা বন্ধ করে তরুণীকে গণধর্ষণ  'ঊর্মিলাকে পর্ন অভিনেত্রী' বললেন কঙ্গনা  যে যাই বলুক, আসলে মানুষ‌‌ পুলিশকে ভালোবাসে   আত্মবিশ্বাসের সঙ্গে কাজ করবেন, সরকারি কর্মচারীদের উদ্দেশে প্রধানমন্ত্রী  ট্রাম্পের নারী কেলেংকারি ফাঁস, মুখ খুললেন মডেল  দেশের অর্থনীতি ধ্বংস করার চেষ্টা করছে ভারত : জাফরুল্লাহ  তিতাস-ডিপিডিসি ও মসজিদ কমিটি দায়ী: প্রশাসনের তদন্ত প্রতিবেদন  তাহিরপুর-বাদাঘাট সড়কে সীমাহীন র্দূভোগ:দেখার কেউ নেই   মসজিদে অগ্নিকাণ্ডে নিহত পরিবারের মাঝে জেলা আ:লীগের আর্থিক সহায়তা প্রদান   ধর্ষণ মামলায় শিল্পপতি ছেলের যাবজ্জীবন কারাদন্ড

ঢাকা রেঞ্জের এসপির বিরুদ্ধে ৫ কোটি টাকা ক্ষতিপূরণের মামলা

 Tue, Sep 15, 2020 9:46 PM
ঢাকা রেঞ্জের এসপির বিরুদ্ধে ৫ কোটি টাকা ক্ষতিপূরণের মামলা

এশিয়া খবর ডেস্ক:: ঢাকা রেঞ্জের পুলিশ সুপার (ট্টেনিং অ্যান্ড মিডিয়া) জিয়াউল হকের

 বিরুদ্ধে পাঁচ কোটি টাকা ক্ষতিপূরণের মামলা করেছেন এক ব্যবসায়ী।
ঢাকার প্রথম যুগ্ম জেলা জজ উৎপল ভট্টাচার্যের আদালতে মঙ্গলবার ব্যবসায়ী জাকির হোসেন চৌধুরী এ মামলা করেন।

আদালত মামলাটি গ্রহণ করে টাকা দেওয়ার কেনো নির্দেশ দেওয়া হবে না-জানতে চেয়ে আগামী ১৫ অক্টোবর এসপিকে জবাব দাখিলের নির্দেশ দিয়েছেন।

মামলার আরজি থেকে জানা যায়,  মামলার বাদীর ভাই বাচ্চু হোসেনের গোপালগঞ্জের গোবরা এলাকার ১০৭ নম্বর হিরাবাড়ি লেনে একটি বেকারির দোকান ছিল। গোপালগঞ্জ সদর থানার ওসি মনিরুল ইসলাম ও এসআই গোলাম কিবরিয়া প্রায় সেখানে গিয়ে তারা দোকানের মালামাল নিয়ে টাকা না দিয়ে চলে আসতেন।

জানা যায়, একদিন এসআই গোলাম কিবরিয়া ও তার সোর্স প্রবাল বিশ্বাস এসে কফি খেতে চান। বাচ্চু মিয়া কফির পানি গরম নেই বলে তা দিতে অপারগতা প্রকাশ করেন। এজন্য তারা বাচ্চুর সঙ্গে খারাপ আচরণ করে এবং পরিণাম কী বুঝতে পারবে বলে হুমকি দেন।

মামলার আরজি থেকে জানা যায়, গত ৭ মে প্রবাল বিশ্বাস তার দোকানে এসে চা পান করে চলে যান। এর কিছুক্ষণ পর প্রবাল দোকানে এসে বাচ্চুকে বলেন- তোমার দোকানে একটি ব্যাগ ফেলে রেখেছি, যাতে এক লাখ ৬৫ হাজার টাকা ছিল। তুমি কি পেয়েছ? তখন বাচ্চু ব্যাগ পাননি বলে জানালে এসআই গোলাম কিবরিয়া তাকে থানায় নিয়ে বেদম প্রহার করে সাদা কাগজে সই নিয়ে ছেড়ে দেন।

এরপর থানা থেকে বের হয়ে গোপালগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি হন বাচ্চু মিয়া। হাসপাতাল থেকে ১৬ মে ছাড়পত্র নিয়ে পুলিশ সদর দফতরে নির্যাতনের বিচার চেয়ে আবেদন করেন। এর তদন্ত ভার দেওয়া হয় এসপি জিয়াউল হককে। তিনি অভিযোগের সত্যতা পাননি বলে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করেন।

বাদীর আইনজীবী মাইনউদ্দিন জানান, পুলিশের কাছে অভিযোগ দেওয়ার পর বাচ্চু ও তার স্ত্রী সাহিদার বিরুদ্ধে গোপালগঞ্জে পুলিশের সোর্স মিথ্যা মামলা করেন। নির্যাতনের পরও পুলিশ বাচ্চুর বিরুদ্ধে প্রতিবেদন দেওয়ায় নির্যাতিতের পরিবার ন্যায় বিচার থেকে বঞ্চিত হয়েছেন। প্রতিবেদনে তার বক্তব্য মানহানিকর। ব্যক্তিগত, ব্যবসায়িকভাবে পাঁচ কোটি টাকা ক্ষতি হয়েছে, যা অপূরণীয় দাবি করে তার ভাই জাকির হোসেন বাদী হয়ে মামলা করেন।

Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement

আরও দেখুন