সদ্য সংবাদ

  ভাসান চর যেতে জড়ো হচ্ছে শত শত রোহিঙ্গা   পিরামিডের সামনে ‘আপত্তিকর’ ছবি, মিসরীয় মডেল গ্রেপ্তার   সিদ্ধিরগঞ্জে প্রো-অ্যাকটিভ ডাক্তারের অবহেলায় রোগী মৃত্যুর অভিযোগ   প্রতিবন্ধী মানুষের উন্নয়নে সমন্বিতভাবে কাজ করুন : প্রধানমন্ত্রী  করোনার টিকা সরবরাহে হানা দিতে পারে দুর্বৃত্তরা: ইন্টারপোল   এমসি কলেজ হোস্টেলে গণধর্ষণে অভিযুক্ত ৬, চার্জশিট বৃহস্পতিবার   মার্কিন দূতাবাসের কাছে ফেলে যাওয়া সেই ব্যাগে ছিল বালু ও তার   সভা-সমাবেশের ওপর নিষেধাজ্ঞা সংবিধান পরিপন্থী: ফখরুল   হতাশাগ্রস্ত হয়ে আত্মহত্যা, নেপথ্যে প্রেম?  দুর্নীতিবাজ রুই-কাতলদের আইনের আওতায় আনতে হবে : হাইকোর্ট  সিদ্ধিরগঞ্জে দৃষ্টি প্রতিবন্ধী বৃদ্ধার জমি দখল করতে হামলা ও ভাংচুর ॥  সুনামগঞ্জের নৌপথে আ’লীগ সভাপতি পুত্রের চাঁদাবাজি বন্ধের দাবিতে মানববন্ধন  পঞ্চগড়ে কৃষকদের মাঝে সার-বীজ ও কৃষি উপকরণ বিতরণ   নবীনগরে বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষণ, ধর্ষক গ্রেপ্তার  করোনার টিকার অনুমোদন চায় মডার্নাও  test news for news uploading   ‘কম খরচে যাতায়াতে দেশব্যাপী রেল নেটওয়ার্ক স্থাপন হবে  দুবাইয়ের ব্যবসায়ীর সঙ্গে বাগদান সারলেন বেনজিরের মেয়ে   বর্তমান সরকারের পতনের অবস্থা চলছে: ডা. জাফরুল্লাহ   বঙ্গবন্ধু রেলসেতুর ব্যয় হবে ১৭ হাজার কোটি টাকা

তারকাদের পূজার হালচাল

 Sat, Oct 24, 2020 10:43 PM
 তারকাদের পূজার হালচাল

বিনোদন ডেস্ক:: প্রতি বছর কলকাতার কয়েকজন বিখ্যাত তারকাদের

বাড়িতে অনুষ্ঠিত হয় দুর্গাপূজা। যার মধ্যে মল্লিক বাড়ির পূজা ভক্তদের কাছে স্পেশাল। তারকার বাড়ির পূজা কেমন, এ নিয়ে কৌত‚হলের কমতি থাকে না ভক্তদের মধ্যে। এই কৌত‚হল নিয়েই প্রতি বছর দর্শনার্থীর ঢল নামে কোয়েল মল্লিক, অভিজিৎ ভট্টাচার্য, সুদীপা চট্টোপাধ্যায়, ভাস্বর চট্টোপাধ্যায়ের বাড়িতে। কেমন হচ্ছে এবারের পূজা। তারই খোঁজ জানালো মেলা

মল্লিকবাড়ির পূজা এবার দ্বাররুদ্ধ

কোয়েল মল্লিক এবং রঞ্জিত মল্লিক। সঙ্গে যদি জামাই নিসপাল সিং রানের দেখা মেলে, উপরি পাওনা সেটা। পূজা দেখার পাশাপাশি এই তিন আকর্ষণের জন্য অষ্টমীতে তিলধারণের জায়গা থাকে না মল্লিকবাড়িতে। এ বছর সেখানেও রুদ্ধদ্বারে পূজা। মল্লিক বাড়ির সদস্যরা এক সঙ্গে এই সিদ্ধান্ত নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় জানিয়েছেন, ‘এই বছর প্রসিদ্ধ মল্লিকবাড়ির দুর্গাপূজা একটি পারিবারিক অনুষ্ঠান হতে চলেছে। বর্তমান পরিস্থিতির পরিপ্রেক্ষিতে দর্শনার্থী ও সংবাদমাধ্যমকে আমরা আমন্ত্রণ জানাতে পারছি না। সবার সুরক্ষাকে প্রাধান্য দিয়েই আমাদের এই সিদ্ধান্ত।’ সদ্য করোনামুক্ত মল্লিক পরিবার এবং রানে। তাই বাড়তি সতর্কতা হিসেবে এটুকু তারা চাইতেই পারেন অনুরাগীদের থেকে।

বাড়ির পূজার ২৫ বছর

গায়ক অভিজিৎ ভট্টাচার্যের পূজা এ বছর ২৫-এ পা দিচ্ছে। স্বাভাবিকভাবেই জমকাল আয়োজনের কথা বছরের শুরু থেকেই ভেবে রেখেছিলেন তিনি এবং তার পরিবার। ভেস্তে গিয়েছে সেই পরিকল্পনা। লোখান্ডওয়ালায় এক ডাকে পরিচিত ভট্টাচার্য বাড়ির পূজা এবার একদম ঘরোয়া, জানিয়েছেন অভিজিৎ। তার যুক্তি, ‘করোনার এই সাংঘাতিক পরিস্থিতিতে অন্যবারের মতো করে উদযাপনের কথা ভাবতেই পারছি না। তাই মানুষের নিরাপত্তা আর সুস্থতার কথা ভেবে এ বছর পূজার চেনা উদযাপন বন্ধ রেখেছি আমরা।’

পাশাপাশি আশ্বস্ত করেন অনুরাগীদের, ‘এ বছরটা আমাদের কাছে ভীষণ স্পেশাল। কারণ এ বছর আমাদের বাড়ির পূজার ২৫ বছর হলো। তাই ভিড়ে ঠাসা উৎসব না হলেও এ বছরটা মানুষের পূজায় মাততে চাইছি। তাই আমাদের পূজার পুরনো উদযাপনগুলো থেকে সবটুকু আনন্দের মুহূর্তের কোলাজ একটা ভিডিওর আকারে মানুষের কাছে পৌঁছে দিচ্ছি আমরা। আর পূজা বন্ধ তো কী হলো! গত ২৫ বছর ধরে মুর্শিদাবাদ থেকে যে ঢাকি, ডেকরেটরস, শিল্পীরা এসে আমার লোখান্ডওয়ালার পূজাকে এত জমকালো করে তুলেছেন, তাদের মুখের হাসি কি মলিন হতে দেয়া যায়? পূজায় তাদের মুখে হাসি ফোটানোর দায়িত্ব তাই আমরাই কাঁধে তুলে নিয়েছি।’

সার্বজনীন নয়, অভ্যন্তরীণ

পূজার আগেই অভিনেত্রী সুদীপা এবং তার স্বামী অগ্নিদেব সোশ্যাল মিডিয়ায় বার্তা দেন, ‘অত্যন্ত দুঃখের সঙ্গে জানাচ্ছি যে, পরিবর্তিত পরিস্থিতিতে, এ বছর আমাদের চ্যাটার্জি বাড়ির পূজা একেবারেই পারিবারিক আত্মীয়-স্বজন ও বন্ধু-বান্ধবদের মধ্যে সীমিত থাকছে।’ অর্থাৎ এ বছর সবার মঙ্গল চেয়ে অনুরাগীদের থেকে কিছুটা হলেও নিজেদের গুটিয়ে নিয়েছেন তারা। এ বিষয়ে সুদীপার মত, পূজাও ছোট করা হয়েছে আকারে। কারণ করোনা। তার জন্য চট্টোপাধ্যায় পরিবারের ভীষণ মন খারাপ। পূজার পাশাপাশি তারকাদেরও হাট বসে চট্টোপাধ্যায় পরিবারে। সেসবও দেখতে পাবেন না অনুরাগীরা? না, একেবারে হতাশ করছেন না তারকা দম্পতি। পূজার কিছু অংশ, পারিবারিক কিছু মুহূর্ত তারা দেখানোর চেষ্টা করবেন ভার্চুয়ালি।

নিরাপত্তার কথা ভেবেই ‘নো নিমন্ত্রণ’

অভিনেতা ভাস্বর চট্টোপাধ্যায়ের গ্রামের বাড়িতে ঘটা করে দুর্গাপূজা হয়। এ বছর পূজা ৮০ বছরে পা রাখছে। ‘আর এই বছরেই করোনা হতে হলো!’ পূজা নিয়ে তাই হালকা হতাশা প্রকাশ করেই ফেলেছিলেন অভিনেতা। তিনিই জানালেন, আত্মীয়-পরিজন ছাড়াও আশপাশ থেকে প্রচুর দর্শনার্থী আসেন। কলকাতা থেকেও ইন্ডাস্ট্রির অনেকে যান দেশের বাড়ির পূজা দেখতে। বেশি ভিড় হয় অষ্টমীর অঞ্জলির সময়। এবার সেসবে দাঁড়ি। হাতেগোনা কিছু মানুষ হয়তো পূজা দালানে পা রাখার অনুমতি পাবেন। একসঙ্গে অনেক জনকে ঢুকতে দেয়া হবে না। প্রত্যেকেই ঢুকবেন অবশ্যই নিরাপত্তা এবং সামাজিক দূরত্ব মেনে। এ বছর সবার কথা ভেবে তাই ‘নো নিমন্ত্রণ’।


Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement

আরও দেখুন