সদ্য সংবাদ

 অমিতাভ নাতনি নভ্যার ভাইরাল ছবি ঘিরে জল্পনা  সারাদেশে শীত থাকবে মাসজুড়ে  ১২ মাসের বেতন দিতে না পারলে পরিষদ বাতিল: স্থানীয় সরকার মন্ত্রী  পঞ্চগড়ে গভীর রাতে শীতার্তদের পাশে জেলা প্রশাসক   কারাগারে মানসিক স্বাস্থ্য বিষয়ক অনলাইন প্রশিক্ষণ শুরু  বাগলী স্থল শুল্ক ষ্টেশনে মানববন্ধন  আড়াইহাজারে সোয়া ৫টন অবৈধ পলিথিন সহ গ্রেফতার ২   ভারতে টিকা নেয়ার পর ৪৪৭ জনের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া  সিদ্ধিরগঞ্জে ভাবীকে পিটিয়ে রক্তাক্ত যখম করলেন দেবর  সাংবাদিকদের কল্যাণে সরকার কাজ করে যাচ্ছে -পিআইবি মহাপরিচালক   ফাইজারের করোনা ভ্যাকসিন নেয়ার পর নরওয়ের ২৩ নাগরিকের মৃত্যু  সিরাজগঞ্জ বিএনপি বিজয়ী কাউন্সিলর প্রার্থী খুন   নির্বাচনে কে জিতবে, নির্ধারণ হয় প্রধানমন্ত্রীর বাসা থেকে   এ নির্বাচনকে অংশগ্রহণমূলক বলা যায় না : মাহবুব তালুকদার  রাজউকের প্রস্তাব বাস্তবসম্মত নয়, নাসিকের চিঠি   মঞ্জু হত্যা মামলা থেকে প্রয়াত রাষ্ট্রপতি এরশাদকে অব্যাহতি  নারায়ণগঞ্জ বধ্যভূমিতে ১৩৯ শহীদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদনে ডিসি  বাইডেনের শপথ গ্রহণে গাইবেন লেডি গাগা ও জেনিফার লোপেজ  পুতুলে ভরে অভিনব কায়দায় ইয়াবা বিক্রি  ঢাকা এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে দৃশ্যমান

বাল্যবিয়ে ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে এলাকাবাসীর ক্ষোভ

 Fri, Nov 27, 2020 9:43 PM
 বাল্যবিয়ে ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে এলাকাবাসীর ক্ষোভ

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি:: নবম শ্রেণীর এক ছাত্রীকে বাল্য বিয়ে করার ঘটনা

  তদন্তে প্রমাণিত হওয়ার পরও অভিযুক্ত ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে আইনী পদক্ষেপ না নেয়ায় সচেতন মহলে তীব্র ক্ষোভ বিরাজ করছে। তদন্ত প্রতিবেদন জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে জমা দেয়ার ১৯ দিন অতিবাহিত হলেও প্রশাসনিক পদক্ষেপ না নেয়ায় এ ক্ষোভের সৃষ্টি হয়। এ প্রতিবেদক জেলা প্রশাসক মো. রেজাউল করিম এর সাথে সরাসরি সাক্ষাৎ করে বিষয়টি জানতে চাইলে তিনি জানান, কালেক্টরেট কর্মচারীদের ধর্মঘটের কারণে প্রশাসনিক কার্যক্রম কিছুটা ব্যাহত হওয়ায় তদন্ত প্রতিবেদন সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ে প্রেরণে বিলম্ব হচ্ছে।

সম্প্রতি কুড়িগ্রাম জেলার উলিপুর উপজেলার বুড়াবুড়ি ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মো. আবু তালেব (৪৯) একই ইউনিয়নের দোলন গ্রামের হতদরিদ্র প্রতিবন্ধি ওসমান গনি সরকার বাচ্চুর ৯ম শ্রেণীতে পড়ুয়া বকসীগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী মোছা. বর্ণিতা ওসমান বর্ণী (১৪)কে বাল্য বিয়ে করে। বিষয়টি জানাজানি হলে ভোরের কাগজ সহ বিভিন্ন পত্রিকায় গুরুত্বসহকারে ছাপা হয়। সোশ্যাল মিডিয়া ফেসবুকেও ভাইরাল হয় ঘটনাটি। “বাল্যবিয়ে বন্ধে যেখানে চেয়ারম্যানের ভূমিকা রাখার কথা সেখানে চেয়ারম্যানই যখন বাল্য বিয়ে করছেন? তখন এ নিয়ে তোলপাড় শুরু হয় দেশব্যাপী।

Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement

আরও দেখুন