সদ্য সংবাদ

 অমিতাভ নাতনি নভ্যার ভাইরাল ছবি ঘিরে জল্পনা  সারাদেশে শীত থাকবে মাসজুড়ে  ১২ মাসের বেতন দিতে না পারলে পরিষদ বাতিল: স্থানীয় সরকার মন্ত্রী  পঞ্চগড়ে গভীর রাতে শীতার্তদের পাশে জেলা প্রশাসক   কারাগারে মানসিক স্বাস্থ্য বিষয়ক অনলাইন প্রশিক্ষণ শুরু  বাগলী স্থল শুল্ক ষ্টেশনে মানববন্ধন  আড়াইহাজারে সোয়া ৫টন অবৈধ পলিথিন সহ গ্রেফতার ২   ভারতে টিকা নেয়ার পর ৪৪৭ জনের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া  সিদ্ধিরগঞ্জে ভাবীকে পিটিয়ে রক্তাক্ত যখম করলেন দেবর  সাংবাদিকদের কল্যাণে সরকার কাজ করে যাচ্ছে -পিআইবি মহাপরিচালক   ফাইজারের করোনা ভ্যাকসিন নেয়ার পর নরওয়ের ২৩ নাগরিকের মৃত্যু  সিরাজগঞ্জ বিএনপি বিজয়ী কাউন্সিলর প্রার্থী খুন   নির্বাচনে কে জিতবে, নির্ধারণ হয় প্রধানমন্ত্রীর বাসা থেকে   এ নির্বাচনকে অংশগ্রহণমূলক বলা যায় না : মাহবুব তালুকদার  রাজউকের প্রস্তাব বাস্তবসম্মত নয়, নাসিকের চিঠি   মঞ্জু হত্যা মামলা থেকে প্রয়াত রাষ্ট্রপতি এরশাদকে অব্যাহতি  নারায়ণগঞ্জ বধ্যভূমিতে ১৩৯ শহীদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদনে ডিসি  বাইডেনের শপথ গ্রহণে গাইবেন লেডি গাগা ও জেনিফার লোপেজ  পুতুলে ভরে অভিনব কায়দায় ইয়াবা বিক্রি  ঢাকা এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে দৃশ্যমান

ঘুষ নেওয়ার ভিডিও ভাইরাল, এএসআই প্রত্যাহার

 Thu, Dec 3, 2020 9:40 PM
ঘুষ নেওয়ার ভিডিও ভাইরাল, এএসআই প্রত্যাহার

রাজশাহী প্রতিনিধি:: রাজশাহীর বাগমারা উপজেলার তাহেরপুর পুলিশ

ফাঁড়ির সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) হারুনুর রশীদ একটি দোকান থেকে টাকা নিচ্ছেন, এমন ভিডিও ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়েছে। ঘুষ লেনদেনের ভিডিও ভাইরালের পর বুধবার তাকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।

ভাইরাল হওয়া ভিডিওতে দেখা গেছে, করোনাকালে লকডাউনের সময় তাহেরপুর বাজারের একটি মোবাইল ফোনের দোকানে ঢুকে দোকান খোলার অপরাধে টাকা দাবি করেন এএসআই হারুন। সিগারেট মুখে রেখে দোকানদারের কাছ থেকে তিন হাজার টাকা দাবি করেন তিনি। পরে তাকে দুই হাজার টাকা দিলে তিনি টাকা গুণে দেখে আরও এক হাজার টাকা দাবি করেন। পুরো টাকা নিয়েই দোকান ত্যাগ করেন তিনি। তার টাকা নেয়ার দৃশ্য সিসিটিভি ক্যামেরায় ধরা পড়ে। ভিডিওটি লকডাউনের সময়ের হলেও তা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয় বুধবার।

স্থানীয়রা জানান, এএসআই হারুন এলাকার মানুষকে চরম হয়রানি করতেন। ভয়ভীতি দেখিয়ে ঘুষ ও চাঁদাবাজি করতেন। লকডাউনে দোকানপাট খুললেই এএসআই হারুনকে ঘুষ দেয়া বাধ্যতামূলক ছিল। ভুক্তভোগীরা বলছেন, এএসআই হারুনের মূল কাজই ছিল দোকানে দোকানে চাঁদাবাজি করা আর মাদক ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে টাকা আদায় করা।

এ বিষয়ে রাজশাহীর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ও জেলা পুলিশের মুখপাত্র ইফতেখায়ের আলম বলেন, ভিডিওটি জেলা পুলিশের নজরে এলে পুলিশ সুপারের নির্দেশে তাহেরপুর ফাঁড়ি থেকে এএসআই হারুনকে পুলিশ লাইনে ক্লোজ করা হয়েছে। তাকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। বিষয়টি নিয়ে তদন্ত চলছে।

Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement

আরও দেখুন