সদ্য সংবাদ

 অমিতাভ নাতনি নভ্যার ভাইরাল ছবি ঘিরে জল্পনা  সারাদেশে শীত থাকবে মাসজুড়ে  ১২ মাসের বেতন দিতে না পারলে পরিষদ বাতিল: স্থানীয় সরকার মন্ত্রী  পঞ্চগড়ে গভীর রাতে শীতার্তদের পাশে জেলা প্রশাসক   কারাগারে মানসিক স্বাস্থ্য বিষয়ক অনলাইন প্রশিক্ষণ শুরু  বাগলী স্থল শুল্ক ষ্টেশনে মানববন্ধন  আড়াইহাজারে সোয়া ৫টন অবৈধ পলিথিন সহ গ্রেফতার ২   ভারতে টিকা নেয়ার পর ৪৪৭ জনের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া  সিদ্ধিরগঞ্জে ভাবীকে পিটিয়ে রক্তাক্ত যখম করলেন দেবর  সাংবাদিকদের কল্যাণে সরকার কাজ করে যাচ্ছে -পিআইবি মহাপরিচালক   ফাইজারের করোনা ভ্যাকসিন নেয়ার পর নরওয়ের ২৩ নাগরিকের মৃত্যু  সিরাজগঞ্জ বিএনপি বিজয়ী কাউন্সিলর প্রার্থী খুন   নির্বাচনে কে জিতবে, নির্ধারণ হয় প্রধানমন্ত্রীর বাসা থেকে   এ নির্বাচনকে অংশগ্রহণমূলক বলা যায় না : মাহবুব তালুকদার  রাজউকের প্রস্তাব বাস্তবসম্মত নয়, নাসিকের চিঠি   মঞ্জু হত্যা মামলা থেকে প্রয়াত রাষ্ট্রপতি এরশাদকে অব্যাহতি  নারায়ণগঞ্জ বধ্যভূমিতে ১৩৯ শহীদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদনে ডিসি  বাইডেনের শপথ গ্রহণে গাইবেন লেডি গাগা ও জেনিফার লোপেজ  পুতুলে ভরে অভিনব কায়দায় ইয়াবা বিক্রি  ঢাকা এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে দৃশ্যমান

সরকার জনগণের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করছে: জাফরুল্লাহ

 Sat, Dec 5, 2020 9:04 PM
সরকার জনগণের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করছে: জাফরুল্লাহ

এশিয়া খবর ডেস্ক:: গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ

 চৌধুরী বলেছেন, সরকার জনগণের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করছে। এই ষড়যন্ত্রের মূল ভিত্তি দুর্নীতি। ৭ হাজার কোটি টাকা দিয়ে যে পদ্মা সেতু হতো, সেটা এখন ৫০ হাজার কোটিতে পৌঁছেছে। এই টাকা কোথায় যাবে? এরকম হাজারটা প্রমাণ আছে।

শনিবার জাতীয় প্রেস ক্লাবে জাতীয় গণতান্ত্রিক পার্টি (জাগপা) আয়োজিত বিজয়ের ৪৯ বছর: জনতার গণতন্ত্র ও জনগণের ভোটাধিকার শীর্ষক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

ভাস্কর্য বিতর্ক প্রসঙ্গে ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, আজকে আলেমদের দিয়ে যে বিতর্ক আনা হয়েছে তার জন্য আওয়ামী লীগ দায়ী। বিমানবন্দরের সামনে লালনের ভাস্কর্য ছিল সেটা নিয়ে হুমকি ধামকি শুনে সরকার চুপচাপ বসে ছিল। এখন তারা শেখ মুজিবের ভাস্কর্য নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে। আলেমরা শ্রদ্ধেয় ব্যক্তি। আপনাদের অযথা বিতর্কে জড়িয়ে পড়া ঠিক না। আজকে ভাস্কর্য বিতর্কে যাওয়া ইসলামের জন্য ক্ষতিকর। ভাস্কর্য বিতর্কে না জড়িয়ে জনগণের অধিকার আদায়ের সংগ্রামে আসেন।

বিএনপির উদ্দেশে জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, বিএনপির উচিত হবে খালেদা জিয়াকে ঘরের মধ্যে আবদ্ধ না রেখে তাকে প্রতিদিন এক ঘণ্টা রোদের মধ্য বসতে হবে। যাতে জনগণ দেখতে পায় তাদের নেত্রীকে অন্যায়ভাবে আটকে আন্দোলনটাকেই আটকে রাখা হয়েছে। বিচারকরা একটা অন্যায় বিচার করেছেন। দুই কোটি টাকার জন্য সেই বিচার এখনো শেষ হয়নি। অন্তত পক্ষে জামিনটা তো অবশ্যই হওয়া উচিত।

তিনি বলেন, বিএনপির ক্ষমতায় আসতে হলে তারেক রহমানকে নয় তার একমাত্র মেয়ে জায়মা রহমানকে সঙ্গে নিয়ে নামতে হবে। তারেকের বক্তব্য দিয়ে ক্ষমতায় আসতে পারবেন না কোনো দিন। আপনারা যদি সত্যিকার অর্থে ক্ষমতায় আসতে চান, জনগণের ক্ষমতা প্রতিষ্ঠিত করতে চান তাহলে জাইমাকে সঙ্গে নিয়ে নামতে পারেন। আমি তারেককে কোনো দোষ দিচ্ছি না। বাস্তবতা বলে একটা কথা আছে। আমরা বললেই তার বিরুদ্ধে মামলা প্রত্যাহার হবে না এবং বাংলাদেশের মাটিতে ফিরতে পারবেন না। একমাত্র গণতন্ত্রের বিজয় হলেই তারেক দেশে ফিরতে পারবেন।

ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, যদি জায়মা আসেন তাহলে তাকে নিয়ে সারাদেশ ঘুরে বেড়াতে হবে। তখনই দেখবেন জোয়ার কিভাবে উঠে, তখনই শেখ হাসিনা টের পাবেন তার যোগ্য প্রতিদ্বন্দ্বী এসেছে।

তিনি আরও বলেন, আমরা ঘরের ভেতর যেসব কথা বলি কাজে তা প্রমাণ করি না। বিশেষ করে বিএনপির বেলায় একথা প্রযোজ্য। বিএনপিতে যেখানে মেজর (অব.) হাফিজ উদ্দিন আহমেদ, যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, খায়রুল কবির খোকনের মতো লোক আছে সেখানে খালেদা জিয়া কেন চুপচাপ গুলশানের মতো বাড়িতে আবদ্ধ থাকবে।

জাগপার সভাপতি খন্দকার লুৎফর রহমানের সভাপতিত্বে সভায় আরো বক্তব্য রাখেন বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন, জাগপার প্রেসিডিয়াম সদস্য খোন্দকার আবিদুর রহমান প্রমুখ।

Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement

আরও দেখুন