সদ্য সংবাদ

 ভোটের অধিকার কেড়ে নিয়ে সরকার বড় দুর্নীতি করেছে : মির্জা ফখরুল   নিঃশর্ত ক্ষমা চাইলেন কুষ্টিয়ার সেই এসপি তানভীর   নারায়ণগঞ্জে মৃত ৬ মুক্তিযোদ্ধা লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন জেলা প্রশাসক বরাবর  উত্তরবঙ্গ এখন দ্বিতীয় চা অঞ্চল হিসেবে পরিনত  করোনা থেকে রক্ষায় আল্লাহর কাছে প্রার্থনা করার আহ্বান-ডেপুটি স্পিকারের   বাংলাদেশে টিকার দাম কত হবে, জানালেন পাপন   কারাগারে হলমার্ক জিএমের নারীসঙ্গী, ডেপুটি জেলারসহ ৩ জন প্রত্যাহার   যে তারকাকে টুইটারে ফলো করেন বাইডেন  জ্যাক মার মিনিটের দাম ৫ হাজার ৮০০ কোটি ডলার!   সাকিব-তামিমে সিরিজ জয় টাইগারদের  রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রী প্রথম টিকা নিলে ভরসা পাবে জনগণ: রিজভী   বিশ্বের দূষিত শহরের তালিকায় শীর্ষে ঢাকা  রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন নিয়ে বাংলাদেশের চিঠির জবাব দিয়েছে মিয়ানমার  কারাগারে হলমার্ক হোতার নারীসঙ্গ, তদন্ত কমিটি গঠন  ‘কিলার‘ নাটক নির্মাণ করে প্রশংসিত আলিফ মাহমুদ  নারায়ণগঞ্জে কাজ করতে পেরে গর্বিত: ডিসি মোস্তাইন বিল্লাহ  সত্য কথা বলায় আমার বিরুদ্ধে মামলা : কাদের মির্জা   বিবাহ ও তালাক নিবন্ধন হবে অনলাইনে   পিকে হালদারের দুই সহযোগী ৩ দিনের রিমান্ডে   কূটনৈতিক এলাকা হতে পারে পূর্বাচলে : পররাষ্ট্রমন্ত্রী

ধর্ষণের পর শিক্ষার্থীকে হত্যার অভিযোগ, বয়ফ্রেন্ড আটক

 Thu, Jan 7, 2021 10:22 PM
ধর্ষণের পর শিক্ষার্থীকে হত্যার অভিযোগ, বয়ফ্রেন্ড আটক

এশিয়া খবর ডেস্ক:: রাজধানীর কলাবাগানের ডলফিন গলি এলাকায়

ধানমন্ডির মাস্টারমাইন্ড স্কুলের এক শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের পর হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। নিহত ওই তরুণী (১৭) ও লেভেলের শিক্ষার্থী ছিলেন। এ ঘটনায় তার বয়ফ্রেন্ড ফারদিন ইফতেখারকে আটক করা হয়েছে। এছাড়া আর আরও তিন সহপাঠীকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করার কথা জানিয়েছে কলা বাগান থানা পুলিশ।

এ বিষয়ে নিহত শিক্ষার্থীর বোনজামাই শরীফ বলেন, সে সম্পর্কে আমার চাচাতো শ্যালিকা। এ বছর মাস্টারমাইন্ড স্কুল থেকে ও-লেভেল পরীক্ষা দেয়ার কথা ছিল। বৃহস্পতিবার দুপুর তিনটার দিকে কলাবাগানের ডলফিন গলিতে কোচিং করতে গেলে এ সময় তার এক বান্ধবী মিথ্যা প্রলোভন দেখিয়ে একটি বাসায় নিয়ে যায়। এ সময় ওই বাসাতে চারজন মিলে তাকে ধর্ষণ করে।
যখন প্রচন্ড রক্তপাত শুরু হয় তখন ধর্ষণে অভিযুক্ত ফারদিন ইফতেখার দিহান তাকে ধানমন্ডির আনোয়ার খান মর্ডান হাসপাতালে নিয়ে যায়। পরবর্তীতে বিকাল পাঁচটায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায়। মরদেহ বর্তমানে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে রয়েছে। এ বিষয়ে আমরা মামলা করেছি।
 
তিনি বলেন, নিহত শিক্ষার্থীর মা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনে চাকরি করেন। বাবা ব্যবসায়ী। তিন ভাই বোনের মধ্যে সে ছিল বড়। ধানমন্ডি ৩২ নম্বরে পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে থাকতেন। নিহত শিক্ষার্থীর মা জানান, আমার মেয়েকে বাসা থেকে ডেকে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল। ও আমাকে যখন ফোন করে জানিয়েছিল তখন আমি অফিসে ছিলাম। আমাকে জানায়, মা আমি ক্লাসের ওয়ার্কসিট আনতে যাচ্ছি। এই বলে গেছে। দুপুর একটার পরে একটি ছেলে মুঠোফোন থেকে ফোন দিয়ে জানায়, আমার মেয়ে অজ্ঞান হয়ে গেছে। ওকে হাসপাতালে নিয়ে এসেছি। আপনারা আসেন। পরবর্তীতে গিয়ে দেখি মেয়ের নিথর দেহ পড়ে আছে। ওকে হাসপাতালেই আনা হয়েছে মৃত। এ বিষয়ে কলাবাগান থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) ঠাকুর দাস মানবজমিনকে জানান এ ঘটনায় মামলা প্রক্রিয়াধীন।

Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement

আরও দেখুন