সদ্য সংবাদ

  নারী পুলিশদের কাছে জনপ্রিয় হচ্ছে হিজাব   মুজিববর্ষের পঞ্চগড়ে ১০০ কিশোরীকে মাশার্ল আর্ট প্রশিক্ষণ  জমজম কূপ পরিষ্কারকরণ প্রকল্পের প্রথম ব্যক্তি ইয়াহিয়া আর নেই  নারায়ণগঞ্জ মডেল মসজিদ উদ্বোধন নিয়ে যা বললেন ইফা উপপরিচালক  দশ ব্যাংকে ঘাটতি ২৯ হাজার কোটি টাকা   পিস্তল ঠেকিয়ে নারীর ৩ লাখ টাকা ছিনতাই, ৩ পুলিশ গ্রেপ্তার  সরকারি অর্থ ব্যয়ে জনগণের স্বার্থ নিশ্চিত করুন : রাষ্ট্রপতি  আ’লীগ ভোট ডাকাতি করে আমাদের বিজয় কেড়ে নিয়েছে: জাতীয় পার্টি  মসজিদ ইস্যুতে মেয়র আইভীর বিরুদ্ধে অপপ্রচার নোংরা রাজনীতির অংশ।  হঠাৎ এক মঞ্চে বাবু-শামীম-সেলিম ওসমান -আইভীর চ্যালেঞ্জ   মেয়র আইভীকে নিয়ে মাওলানা আব্দুল আউয়ালের বিভ্রান্তকর বক্তব্যের ব্যাখ্যা  ভালো কাজ করতে অনেক লোকের প্রয়োজন হয়  সৌদির বিমান বন্দরে হুতির হামলা, বিমানে আগুন  নির্বাচনের ক্রমবর্ধমান ঘটনায় উদ্বিগ্ন মাহবুব তালুকদার  অনেকের চেয়ে ভালোভাবে ভ্যাকসিন সংগ্রহ করেছি : প্রধানমন্ত্রী   মিয়ানমারের বিক্ষোভকারীদের হুশিয়ারি সামরিক জান্তার  থানার দায়িত্ব এসপিদের দিতে সুপারিশ করেছে দুদক  পুলিশ সুপার পদমর্যাদার ১২ কর্মকর্তাকে বদলি  রূপগঞ্জের কায়েতপাড়ায় ইউপি নির্বাচনকে ঘীরে প্রচরণায় মুখর  পঞ্চগড়ে কোভিড-১৯ টিকাদান কর্মসূচীর উদ্বোধন

না ভেঙে সংস্কার করা হবে টিএসসি

 Sun, Jan 31, 2021 10:36 PM
 না ভেঙে সংস্কার করা হবে টিএসসি

এশিয়া খবর ডেস্ক:: ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র শিক্ষক কেন্দ্রের (টিএসসি)

মূল কাঠামো ভাঙা হচ্ছে না। তবে কিছু সংযোজনসহ নতুন ভাবে সংস্কার করা হবে।

রবিবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনেট ভবনে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের সঙ্গে গণপূর্ত অধিদপ্তরের প্রতিনিধিদের সঙ্গে এক সভায় এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। তবে এই সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত নয়, চার সপ্তাহ পরে আরেকটি সভায় এই বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

সূত্র জানায়, টিএসসির সামনের ভবনসহ মূল কাঠামোর কোনো পরিবর্তন করা হবে না, শুধু সংস্কার করা হবে। আর টিএসসির বর্তমান সুইমিং পুলের জায়গায় ১০ তলা বিশিষ্ট একটি ভবন নির্মাণ করা হবে।

জানতে চাইলে প্রধান প্রকৌশলী আবুল কালাম সিকদার দেশ রূপান্তরকে বলেন, টিএসসি নিয়ে গণপূর্তের সঙ্গে দ্বিতীয় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতবারের পরামর্শ অনুযায়ী টিএসসি না ভেঙে নকশা উপস্থাপন করেছে তারা। আর কিছুটা সংযোজন আছে। সুইমিং পুলের জায়গায় একটি ভবন নির্মাণ করা হবে। এখনো চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হয়নি। চার সপ্তাহ পর আরেকটি সভা অনুষ্ঠিত হবে।

সভায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান, ভারপ্রাপ্ত প্রধান প্রকৌশলী আবুল কালাম সিকদারসহ স্থাপত্যবিষয়ক কর্মকর্তারা অংশ নেন। অপরদিকে, গণপূর্তের অতিরিক্ত প্রকৌশলীসহ একটি টিম অংশ নেন।

১৯৬০ এর দশকে গ্রিক স্থপতি কনস্ট্যান্টিন ডক্সিযাডেস বাংলাদেশের গ্রামীণ বসতির আদলে বর্তমান টিএসসির নকশা করেন। ১৯৬৪ সালে নির্মাণকাজ শেষ হয়। সম্প্রতি টিএসসি চত্বর ভেঙে নতুনরূপে বহুতল ভবন দৃষ্টিনন্দন স্থাপনা করার ঘোষণা দেওয়া হয়। এতে শিক্ষকদের কেউ কেউ টিএসসির দৃষ্টিনন্দন ভবনটি ভেঙে ফেলার সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করেছেন।

Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement

আরও দেখুন