সদ্য সংবাদ

 লাগাম টানা যাচ্ছে না সিন্ডিকেটের, দিশেহারা ভোক্তারা  কাশ্মীরে বন্দুকযুদ্ধে ৫ বিদ্রোহী নিহত  ব্যবসা নাই তবুও কোটি কোটি টাকার মালিক : আইভী  স্ত্রী-ছেলেসহ ডিবি কার্যালয়ে মুসা বিন শমসের   সিদ্ধিরগঞ্জে কাউন্সিলর প্রার্থীর পোষ্টার লাগাতে বাধা, মারধর  শাহরুখপুত্রকে গ্রেফতার করা সেই কর্মকর্তা নজরদারিতে   হাসপাতালে ভর্তি খালেদা জিয়া   করোনায় আক্রান্ত শিক্ষকের বেতন কাটলো দুর্নীতিগ্রস্ত জহিরুল হকের কমিটি   ছিনতাই ও খুনি চক্রের ৬ জনকে গ্রেপ্তার করছে পিবিআই নাঃগঞ্জ   খুনি নূর হোসেনের ভাতিজা বাদল ভালো, মেয়র আইভী ব্যর্থ!   সরকারি কর্মচারীদের গ্রেফতারে অনুমতির বিধান কেন অবৈধ নয়: হাইকোর্ট  বাড়ি ভারতে, অফিস করেন সিলেটে  আবারও ষড়যন্ত্র হচ্ছে: ওবায়দুল কাদের   ই-কমার্সের প্রতারনায় ভুক্তভোগী বাণিজ্যমন্ত্রী  সাবেক প্রতিমন্ত্রী মান্নান খান ও তার স্ত্রীর বিচার শুরু   ১০ হাজার ৫০০ শ্রমিককে ভিসা দেবে যুক্তরাজ্য  দেবীগঞ্জে বাসর রাতে পাত্রের রহস্যজনক মৃত্যু  ‘চুনকা কুটির নয়, আইভীর হোয়াইট ওয়াশের জ্বালা বিরোধী পক্ষ  বিয়ের পর আমাদের বন্ধুত্ব গাঢ় হচ্ছে: মাহি  বাংলাদেশে কেউ ভালো নেই : মির্জা ফখরুল

অভিনয়ের সুযোগ পেতে বিছানায় যেতে হয়- পার্বতী

 Wed, Aug 16, 2017 11:03 AM
অভিনয়ের সুযোগ পেতে বিছানায় যেতে হয়- পার্বতী

ডেস্ক রিপোর্ট : : চলচ্চিত্র জগতে শারীরিক সম্পর্কের বিনিময়ে অভিনয়ের সুযোগ দেওয়ার কথা অজানা নয়।

বলিউডের একাধিক অভিনেতা-অভিনেত্রীরা এই নির্মম সত্যের কথা স্বীকার করেছেন।

মালায়ালাম ইন্ডাস্ট্রিতেও একই চিত্র দেখা যায়। মালায়ালাম অভিনেত্রী পার্বতী স্বীকার করেছেন কাস্টিং কাউচের কথা। তিনি জানান, মালায়লাম ইন্ডাস্ট্রিতেও অভিনেতা-অভিনেত্রীরা কাস্টিং কাউচের শিকার।


সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে পার্বতী বলেন, ইন্ডাস্ট্রিতে আমাকে ও আমার মত একাধিক জনকে বিছানায় যাওয়ার প্রস্তাব করেছিল। অভিনয়ের সুযোগ পেতে বিছানায় যেতে বলা হয়েছিল। যৌন সম্পর্ক করতে বলা হয়েছিল। এমন ঘটনার শিকার বেশিরভাগ ক্ষেত্রে মেয়েরাই হয়। অথচ এই মেয়েরাই পারে এর সমাধান করতে। প্রস্তাব এলে সরাসরি না বলে দিতে পারে। তাতে আজ না হোক কাল, এমন সমস্যার মুখোমুখি হবে না ইন্ডাস্ট্রির কোনো শিল্পী।

পার্বতীর কথার সমর্থন দিয়েছে উইমেন ইন সিনেমা কালেক্টিভ (ডব্লিউসিসি)। কেরালার এই সংস্থা জানিয়েছে, ইন্ডাস্ট্রিতে কাস্টিং কাউচ আছে। বিষয়টি নিয়ে তদন্তের জন্য তারা সরকারের কাছে আবেদন জানিয়েছে।

কাস্টিং কাউচ আটকানোর জন্য ডব্লিউসিসি’র প্রতিনিধিরা ভারতের মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়নের কাছে গিয়েছিলেন। তারপর বিষয়টি নিয়ে তদন্ত করার জন্য সরকার একটি কমিশন গঠন করেছিল। হাইকোর্টের সাবেক বিচারপতি কে হেমারের নেতৃত্বে কমিশন তদন্ত শুরু করে।

Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement

আরও দেখুন