সদ্য সংবাদ

 লাগাম টানা যাচ্ছে না সিন্ডিকেটের, দিশেহারা ভোক্তারা  কাশ্মীরে বন্দুকযুদ্ধে ৫ বিদ্রোহী নিহত  ব্যবসা নাই তবুও কোটি কোটি টাকার মালিক : আইভী  স্ত্রী-ছেলেসহ ডিবি কার্যালয়ে মুসা বিন শমসের   সিদ্ধিরগঞ্জে কাউন্সিলর প্রার্থীর পোষ্টার লাগাতে বাধা, মারধর  শাহরুখপুত্রকে গ্রেফতার করা সেই কর্মকর্তা নজরদারিতে   হাসপাতালে ভর্তি খালেদা জিয়া   করোনায় আক্রান্ত শিক্ষকের বেতন কাটলো দুর্নীতিগ্রস্ত জহিরুল হকের কমিটি   ছিনতাই ও খুনি চক্রের ৬ জনকে গ্রেপ্তার করছে পিবিআই নাঃগঞ্জ   খুনি নূর হোসেনের ভাতিজা বাদল ভালো, মেয়র আইভী ব্যর্থ!   সরকারি কর্মচারীদের গ্রেফতারে অনুমতির বিধান কেন অবৈধ নয়: হাইকোর্ট  বাড়ি ভারতে, অফিস করেন সিলেটে  আবারও ষড়যন্ত্র হচ্ছে: ওবায়দুল কাদের   ই-কমার্সের প্রতারনায় ভুক্তভোগী বাণিজ্যমন্ত্রী  সাবেক প্রতিমন্ত্রী মান্নান খান ও তার স্ত্রীর বিচার শুরু   ১০ হাজার ৫০০ শ্রমিককে ভিসা দেবে যুক্তরাজ্য  দেবীগঞ্জে বাসর রাতে পাত্রের রহস্যজনক মৃত্যু  ‘চুনকা কুটির নয়, আইভীর হোয়াইট ওয়াশের জ্বালা বিরোধী পক্ষ  বিয়ের পর আমাদের বন্ধুত্ব গাঢ় হচ্ছে: মাহি  বাংলাদেশে কেউ ভালো নেই : মির্জা ফখরুল

ন্যাম ভবনে ওয়ার্কার্স পার্টির এমপিপুত্রের ‘আত্মহত্যা’

 Mon, Jan 22, 2018 6:14 AM
ন্যাম ভবনে ওয়ার্কার্স  পার্টির এমপিপুত্রের ‘আত্মহত্যা’

ডেস্ক রিপোর্ট : : রাজধানীর মানিক মিয়া এভিনিউয়ে সংসদ সদস্য ভবনের একটি ফ্ল্যাট থেকে এমপি পুত্র অনিক আজিজ

 সাক্ষরের (২৬) ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। অনিক সাতক্ষীরা-১ আসনের ওয়ার্কার্স  পার্টির এমপি অ্যাডভোকেট মুস্তফা লুৎফুল্লাহর ছেলে। গতকাল সকালে শেরেবাংলা নগর থানা পুলিশ গলায় ইন্টারনেটের তার দিয়ে ফ্যানের সঙ্গে ঝুলানো অবস্থায় তার মরদেহ উদ্ধার করে। পরে ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। ময়নাতদন্তের পর অনিকের লাশ হেলিকপ্টারে করে সাতক্ষীরার পলাশপুরে নিজ বাড়িতে নেয়া হয়েছে। সেখানেই পারিবারিক কবরস্থানে দাদার কবরের পাশে লাশ দাফন করা হয়।

অনিক খুলনা পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট থেকে ইলেকট্রিক্যালে ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে ডিপ্লোমা শেষ করে উচ্চ শিক্ষার জন্য বিদেশে যাওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন। পাশাপাশি একটি প্রতিষ্ঠানে ফটোগ্রাফির কোর্স করছিলেন অনিক। শেরেবাংলা নগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা গণেশ গোপাল বিশ্বাস বলেন, সকালে খবর পেয়ে ন্যাম ভবনের ৫ নং ভবনের ৬ তলার ৬০৪ নম্বর কক্ষ থেকে ফ্যানের সঙ্গে ঝুলানো লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। তার শরীরে আর কোনো আঘাতের চিহ্ন পাওয়া যায়নি। প্রাথমিকভাবে মনে হচ্ছে এটি আত্মহত্যা। তবে কী কারণে এই আত্মহত্যা তা এখনো জানা যায়নি। আমরা তদন্ত চালিয়েছি, আশা করি আত্মহত্যার প্রকৃত কারণ আমরা জানতে পারবো। পুলিশ জানিয়েছে, ঘটনার রাতে ওই ফ্ল্যাটে নিহতের ছোট বোন অদিতি আদৃতা সৃষ্টি ও এক গাড়িচালক ছিলেন। মুস্তফা লুৎফুল্লাহ ও তার স্ত্রী নাসরিন খান লিপি সাতক্ষীরায় ছিলেন। বাসার কাজের লোকও ছুটিতে ছিলেন। রাতে খাওয়া- দাওয়া শেষ করে সবাই ঘুমিয়ে পড়েন। সকালে ঘুম থেকে উঠলেও অনিক ঘুম থেকে উঠেনি। পরিবারের লোকজন অনেক ডাকাডাকির পর না ওঠাতে বিকল্প চাবি দিয়ে দরজা খুলে তার মরদেহ দেখতে পান পরিবারের লোকজন। পরে থানায় খবর দেয়া হয়। মরদেহের ময়নাতদন্ত শেষে শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ফরেনসিক বিভাগের আ. ম. সেলিম রেজা সাংবাদিকদের বলেন, নিহত অনিক ইন্টারনেটের তার গলায় দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। তার গলায় ইন্টারনেটের তারের আঘাত পাওয়া গেছে। এছাড়া তার শরীরে আর কোনো আঘাত পাওয়া যায়নি। 

মুস্তফা লুৎফুল্লাহর ব্যক্তিগত সহকারী মফিজুল হক জাহাঙ্গীর বলেন, ওই রাতে এমপি ও তার স্ত্রী ঢাকার বাইরে ছিলেন। বাসায় শুধু অনিকের ছোট বোন ও এক গাড়িচালক ছিল। প্রতিদিনের মতো রাতের খাবার খেয়ে সে তার রুমে চলে যায়। ভোর ছয়টার দিকে এমপি সাহেব এবং আমি ন্যাম ভবনে পৌঁছাই। পরে তিনি তার রুমে চলে যান। সকালে অনেক ডাকাডাকির পর তার কোনো সাড়া না পেয়ে আত্মহত্যার বিষয়ে জানা যায়। তবে রাত ৪টা ৫ মিনিটে অনিক তার ফেসবুকে এক লাইনের একটি স্ট্যাটাস দেন। এতে তিনি লেখেন, ‘তোর জন্য চিঠির দিন...’। 

অনিকের চাচা আলী আ.হ.ম মর্তুজা বলেন, অনিক অনেক ভালো ছেলে ছিল। কিভাবে কি হলো বুঝতে পারছি না। কারো সঙ্গে তার কোনো অভিমান ছিল কিনা তাও জানি না। মরদেহ গ্রামের পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হবে। পুলিশ তার ব্যক্তিগত মোবাইল ফোন ও ল্যাপটপ নিয়ে গেছে।

এদিকে এমপি পুত্র অনিক আজিজ সাক্ষরের মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়ার পর শোকের ছায়া নেমে আসে স্বজনদের মধ্যে। অনেকে পরিবারের সদস্যদের সান্ত্বনা জানাতে এমপি হোস্টেলে যান। হাসপাতালেও ভিড় করেন অনেকে। এদিকে সাতক্ষীরা জেলা শহরের বাড়িতেও ভিড় করেন এলাকার লোকজন। 

Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement

আরও দেখুন