সদ্য সংবাদ

 নারায়ণগঞ্জ ডিবির ক্যাশিয়ার আনোয়ার আতঙ্কে ব্যবসায়ীরা!   ১৮ বছর বিমানবন্দরে বসবাসকারী সেই ইরানির মৃত্যু   ইরানের সঙ্গে সম্পর্ক জোরদারে আগ্রহী পুতিন   কোনো বাধা বিএনপিকে ঠেকাতে পারবে না : রিজভী  পাকিস্তানকে হারিয়ে বিশ্বসেরার মুকুট ইংল্যান্ডের   ঢাকাতেই হবে হজযাত্রীদের ইমিগ্রেশন ও তল্লাশি- স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী   দুর্ভিক্ষ আসছে আতঙ্কে মানুষ  সাত পাকে বাঁধা পড়লেন 'আশিকি টু' ছবির সুরকার- গায়িকা  ডেঙ্গু: আরও ৭ মৃত্যু, হাসপাতালে ভর্তি ৮৭৫   ১০০ সেতু চালু হওয়ায় দেশের উন্নয়ন ত্বরান্বিত হবে: প্রধানমন্ত্রী   অধিকার আদায় না করে ঘরে ফিরে যাব না: ফখরুল  ড্রোন নিয়ে মিথ্যা বলছে ইরান: জেলেনস্কি   ৩০তম বিসিএসের সেই পুলিশ কর্মকর্তা চাকরিচ্যুত   ১০ ডিসেম্বরের সমাবেশে আমরাও থাকব: মান্না  কোনো সিমই বিক্রি করতে পারবে না গ্রামীণফোন   সাংবাদিকদের আয়কর মালিকপক্ষই দেবে: হাইকোর্ট   বিয়েতে দেনমোহর ১০১টি বই   অবাধ ও স্বচ্ছ নির্বাচনে সহযোগিতা করবে যুক্তরাষ্ট্র'   মানুষের ওপর আক্রমণ করলে রক্ষা নেই: প্রধানমন্ত্রী   কপ-২৭ সম্মেলন: ১০০ বিলিয়ন ডলার চায় বাংলাদেশ

খুশিতে, ঠ্যালায়, ভাল্লাগে, ঘুরতে…

 Mon, Jan 28, 2019 10:12 PM
খুশিতে, ঠ্যালায়, ভাল্লাগে, ঘুরতে…

এশিয়া খবর ডেস্ক:: নানা সময়ে নানা চল আসে। কখনো প্লাজমা, কখনো মিউজিক্যালি, কখনো টিকটক।

আর দশজনের মতো তারকারাও মেতে ওঠেন এসবে। এবার তারকারা আক্রান্ত হয়েছেন টিকটক ভাইরাসে। অপু বিশ্বাস, পূর্ণিমা থেকে শুরু করে হালের মাহিয়া মাহি, অমৃতা খান, বিপাশা কবির পর্যন্ত সবাই টিকটক ভিডিও আপলোড করে বাহবা কুড়াচ্ছেন।


কেউ কেউ পুরোনো ছবির কোনো সংলাপে নিজেকে হাজির করছেন, আবার কেউ কেউ হাজির হচ্ছেন পছন্দের গানে। নায়করাও বাদ যাচ্ছেন না। তবে নায়কদের চেয়ে নায়িকাদের ঝোঁকটাই বেশি।



 

কিছুদিন আগেই ঢাকাই ছবির জনপ্রিয় নায়িকা মাহিয়া মাহি ও রোমানা নীড়কে দেখা গেল একটি টিকটক ভিডিওতে। বাপ মেয়ের একটি মজার সংলাপকে ধারণ করে তারা নির্মাণ করেন নিজেদের টিকটক। একই সংলাপে হাজির হতে দেখা গিয়েছে আরেক জনপ্রিয় নায়িকা অমৃতা খান ও নায়ক শিপন মিত্রকে।


আইটেম গার্ল হিসেবে পরিচিত চিত্রনায়িকা বিপাশা কবিরকেও দেখা যায় টিকটক ভিডিওতে। তবে বেশির ভাগ সময়ে তিনি হাজির হন পছন্দের গানের সঙ্গে। চিত্রনায়িকা তানহা তাসনিয়ার ঝোঁকটা একটু বেশিই বলা যায়।


দেশ রূপান্তরকে তানহা বলেন, ‘তেমন কোনো কারণ নেই। মূলত ভালো লাগা থেকেই টিকটক ভিডিও বানাই। এর একটা ভালো দিকও আমি আবিষ্কার করেছি। ধরেন  যে গানগুলো পছন্দ করি, সেই গানগুলোতে টিকটক করার চেষ্টা করি, দেখতে চাই সেই সব জনপ্রিয় গানে নিজেকে দেখতে কেমন লাগে। শুধু তাই নয়, ধরেন এই সমস্ত গানে পারফর্ম করেছেন আমাদের কিংবদন্তি নায়িকারা। সেই গানে তো আর আমরা পারফর্ম করতে পারব না, ফলে টিকটকের মাধ্যমে প্রিয় নায়িকার গানে নিজেকে দেখার কৌতূহলটা মেটাই। এতে করে অভিজ্ঞতাও বাড়ে। আর যখন ফ্রি থাকি, তখন টিকটক করলে সময়টাও ভালো কাটে।’

 

টিকটক কেন করেন জানতে চাইলে বিপাশা কবির বলেন, ‘ভাল্লাগে। জাস্ট ফান। আমার অনেক প্রিয় গান আছে সেই সব গানেই নিজের টিকটক ভিডিও করি। বিশেষ করে শাবনূর আপু, মৌসুমী আপুদের গানে নিজেকে দেখার চেষ্টা করি।’


বেশ কিছু টিকটক ভিডিও করে আলোচনায় থাকা অমৃতার কাছে কারণ জানতে চাইলে হাসতে হাসতেই জবাব দিলেন, ‘এই মনে করেন খুশিতে, ঠ্যালায়, ঘুরতে ভাল্লাগে তাই টিকটক করি।’


হাসি থামিয়ে তিনি বলেন, ‘সত্যি কথা বলতে কি, আমি আগে টিকটক করতাম না। ফেসবুকের মেসেঞ্জারে এসে ফ্যানরা রিকোয়েস্ট করেছে তারা আমাকে টিকটকে দেখতে চায়। এরপর আমি কয়েকটা টিকটক করে বেশ রেসপন্স পাই। এভাবেই টিকটক করা হয়ে গেছে। তবে আমার টিকটকের সঙ্গে অনেকেই নিজেদের জুড়িয়ে দিয়েও প্রচুর টিকটক করেছে। আমাকে জড়িয়ে করা ২/৩ হাজার টিকটকের মধ্যে কিছু টিকটক ভালো লেগেছে আবার কিছু টিকটক খারাপ লেগেছে। কিন্তু জিনিসটা যেহেতু জনগণের হাতে চলে গেছে। ফলে করার কিছু নেই। এখন অবশ্য টিকটক করা কমিয়ে দিয়েছি। কারণ আমরা যেহেতু অভিনয় করি ফলে আমাদের অভিনয়ের একটা জায়গা আছে। টিকটকে বেশি সময় দিলে শেষে দেখা গেল আমাকে দেখতে দর্শকরা আর সিনেমা হলে যাবে না (হাসি)। তাই টিকটক কমিয়ে দিয়েছি।’

 

অমৃতা আরও বলেন, ‘টিকটক না এলে কখনো বুঝতামই না যে দেশে এত অভিনয় শিল্পী আছে। এত প্রতিভা আছে। কারণ অনেক টিকটক ভিডিওতে সাধারণ মানুষদের অভিনয় পেশাদার শিল্পীদের অভিনয়কেও ছাড়িয়ে গিয়েছে। সত্যিই অবাক হওয়ার মতো ব্যাপার।’


উল্লেখ্য টিক টক, একটি চীনা সংগীত ভিডিও প্ল্যাটফর্ম। এই সামাজিক নেটওয়ার্কটি ২০১৬ সালের সেপ্টেম্বর মাসে যাত্রা শুরু করে। টিকটক অ্যাপের মাধ্যমে ব্যবহারকারীরা মিউজিকের সঙ্গে ঠোঁট মিলিয়ে বা নেচে রেকর্ড করে তা প্রচার করতে পারেন। ২০১৭ সালের নভেম্বরে একই খাতের প্রতিষ্ঠান মিউজিক্যালি-কে কিনে নিয়েছিল বাইটড্যান্স। এরপর টিকটক আর মিউজিক্যালি একত্র হয়ে নতুনভাবে যাত্রা শুরু করে।

Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement

আরও দেখুন