সদ্য সংবাদ

 নারায়ণগঞ্জ ডিবির ক্যাশিয়ার আনোয়ার আতঙ্কে ব্যবসায়ীরা!   ১৮ বছর বিমানবন্দরে বসবাসকারী সেই ইরানির মৃত্যু   ইরানের সঙ্গে সম্পর্ক জোরদারে আগ্রহী পুতিন   কোনো বাধা বিএনপিকে ঠেকাতে পারবে না : রিজভী  পাকিস্তানকে হারিয়ে বিশ্বসেরার মুকুট ইংল্যান্ডের   ঢাকাতেই হবে হজযাত্রীদের ইমিগ্রেশন ও তল্লাশি- স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী   দুর্ভিক্ষ আসছে আতঙ্কে মানুষ  সাত পাকে বাঁধা পড়লেন 'আশিকি টু' ছবির সুরকার- গায়িকা  ডেঙ্গু: আরও ৭ মৃত্যু, হাসপাতালে ভর্তি ৮৭৫   ১০০ সেতু চালু হওয়ায় দেশের উন্নয়ন ত্বরান্বিত হবে: প্রধানমন্ত্রী   অধিকার আদায় না করে ঘরে ফিরে যাব না: ফখরুল  ড্রোন নিয়ে মিথ্যা বলছে ইরান: জেলেনস্কি   ৩০তম বিসিএসের সেই পুলিশ কর্মকর্তা চাকরিচ্যুত   ১০ ডিসেম্বরের সমাবেশে আমরাও থাকব: মান্না  কোনো সিমই বিক্রি করতে পারবে না গ্রামীণফোন   সাংবাদিকদের আয়কর মালিকপক্ষই দেবে: হাইকোর্ট   বিয়েতে দেনমোহর ১০১টি বই   অবাধ ও স্বচ্ছ নির্বাচনে সহযোগিতা করবে যুক্তরাষ্ট্র'   মানুষের ওপর আক্রমণ করলে রক্ষা নেই: প্রধানমন্ত্রী   কপ-২৭ সম্মেলন: ১০০ বিলিয়ন ডলার চায় বাংলাদেশ

প্রধানমন্ত্রী ২৫ লাখ টাকা দিলেন আলাউদ্দিন আলীর চিকিৎসায়

 Sun, Feb 3, 2019 11:46 PM
 প্রধানমন্ত্রী ২৫ লাখ টাকা দিলেন আলাউদ্দিন আলীর চিকিৎসায়

এশিয়া খবর ডেস্ক:: কিংবদন্তি সুরকার ও সংগীত পরিচালক আলাউদ্দিন আলীর চিকিৎসার জন্য ২৫ লাখ টাকা দিলেন প্রধানমন্ত্রী।

বেশ কয়েক বছর ধরে রক্তচাপ ও ফুসফুসের সংক্রমণসহ একাধিক রোগে ভুগছেন আটবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারজয়ী সঙ্গীত পরিচালক আলাউদ্দিন আলী।


গত ২২ জানুয়ারি রাতে গুরুতর অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন দেশের তিনি।


সেসময় তাকে মহাখালীর আয়েশা মেমোরিয়াল হাসপাতালে লাইফ সাপোর্টে রাখা হয়েছে বলে জানিয়েছিলেন তার স্ত্রী ফারজানা মিমি।



আজ রোববার দুপুরে আলাউদ্দিন আলীর স্ত্রী ফারজানা মিমিকে গণভবনে ডেকে এনে তার হাতে ২৫ লাখ টাকার সঞ্চয়ীপত্র তুলে দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।


প্রধানমন্ত্রীর কাছে কৃতজ্ঞাতা জানিয়ে ফারজানা মিমি বলেন, ‘ মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আলাউদ্দিন আলীর চিকিৎসায় ২৫ লাখ টাকা সঞ্চয়ী পত্র হিসেবে দিয়েছেন।’


এ সঞ্চয়পত্র থেকে প্রতি মাসে একটা নির্দিষ্ট অংকের টাকা আলাউদ্দিন আলীর চিকিৎসায় ব্যয় হবে বলে জানান তিনি।


প্রসঙ্গত, ১৯৬৮ সালে আলাউদ্দিন আলী যন্ত্রশিল্পী হিসেবে চলচ্চিত্র জগতে আসেন এবং আলতাফ মাহমুদের সহযোগী হিসেবে যোগ দেন।


প্রয়াত আমজাদ খানের 'গোলাপী এখন ট্রেনে' ছবির গানের জন্য আলাউদ্দীন আলী ১৯৭৯ সালে প্রথম জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার লাভ করেন।


দীর্ঘদিনের ক্যারিয়ারে আলাউদ্দীন খান বাংলাদেশের সঙ্গীত ভুবনে উপহার দিয়েছেন অনেক কালজয়ী গান, যা আবহমানকাল ধরেই চলছে মানুষের মুখে মুখে।


তার সুর করা কালজয়ী সেসব গানের মধ্যে উল্লেখযোগ্যগুলো হলো- প্রথম বাংলাদেশ আমার শেষ বাংলাদেশ, একবার যদি কেউ ভালোবাসতো, আছেন আমার মোক্তার আছেন আমার ব্যারিস্টার, যে ছিল দৃষ্টির সীমানায়, ভালোবাসা যতো বড়ো জীবন তত বড় নয়, দুঃখ ভালোবেসে প্রেমের খেলা খেলতে হয়, হয় যদি বদনাম হোক আরো ইত্যাদি ।

Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement

আরও দেখুন