সদ্য সংবাদ

  সাংবাদিকদের নয়, দুর্নীতিবাজদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিন: হানিফ   পঞ্চগড়ে সাংবাদিক রোজিনার মুক্তির দাবিতে মানববন্ধন ও সমাবেশ   লোকাল বাসে ভাড়া দ্বিগুন, যাত্রি তিনগুন, দেখে না প্রশাসন!  রোজিনাকে হেনস্তা দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে সম্পাদক পরিষদের দাবি   সাংবাদিক রোজিনার বিরুদ্ধে মামলা করা উপসচিবসহ ৬ জন বদলি   ইসরায়েলকে সমর্থন দিলে ১০ বছরের জেল-জরিমানা কুয়েতে  তিউনিশিয়া উপকূলে নৌকাডুবি : ৩৩ বাংলাদেশী উদ্ধার   দুর্নীতিবাজ আমলারা কত বেপরোয়া: ড. কামাল   ডিবি পুলিশের রিমান্ডে মামুনুল হককে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু   যমুনা নদীতে ডুবে তিন জনের মৃত্যু  ‘দুর্নীতি আড়াল করতেই’ সরকার সাংবাদিকদের ‘ভয় দেখালো’  সংগ্রামের মাধ্যমে এই সম্মান এসেছে : প্রধানমন্ত্রী  ইসরাইলি যুদ্ধজাহাজে হামাসের ক্ষেপণাস্ত্র হামলা  সাইনবোর্ড ট্রাফিক বক্সের কাছে বোমা বিস্ফোরণে নিষ্ক্রিয়  গাজায় হামলার মধ্যে ইসরাইলকে আরও অস্ত্র দিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র   সাঘাটায় বিএনপি নেতাকর্মিদের ঈদ শুভেচ্ছা   ঝিনাইদহ মহাসড়ক কাঠ ব্যবসায়িদের দখলে   শ্রমিকের বেতন না দিয়ে মালিক পালাতক, সাহায্য দিলেন ডিসি   মিতু হত্যার ঘটনায় সাবেক এসপি বাবুল আক্তার গ্রেফতার  ঈদে মুক্তি পাচ্ছে অভিনেতা তনু পান্ডের ছবি "সৌভাগ্য "

১৫ বছরের ছোট শলের প্রেমে সুস্মিতা সেনের বাগদান

 Sun, Apr 28, 2019 10:01 PM
১৫ বছরের ছোট শলের প্রেমে সুস্মিতা সেনের বাগদান

বিনোদন ডেস্ক:: প্রেমে পড়ার ক্ষেত্রে ভালো সুনাম আছে ১৯৯৪ সালের ‘মিস ইউনিভার্স’ সুস্মিতা সেনের।

 কিছুদিন পর পর তিনি নতুন নতুন প্রেমে পড়েন। বিয়ে নয়, নতুন করে প্রেমে পড়তেই যেন তাঁর বেশি আগ্রহ। ২০১৮ সালের কোনো এক সুন্দর মুহূর্তে ফ্যাশন শোতে র‌্যাম্প মডেল রোহমান শলের সঙ্গে তাঁর পরিচয় হয়। নিয়ম মেনে কিছুদিনের মধ্যেই নতুন প্রেম হয় সুস্মিতার। বয়সে ১৫ বছরের ছোট শলের প্রেমের প্রস্তাবে ইতিবাচক সাড়া দেন সুস্মিতা সেন। এরপরই তাঁদের বিভিন্ন জায়গায় দেখা গেছে একসঙ্গে। তাঁরা চুটিয়ে প্রেম করছেন, এমনকি এক ছাদের নিচে থাকছেনও।

রোহমান শলের সঙ্গে সম্পর্কের ব্যাপারে বরাবরই খোলামেলা ছিলেন সাবেক এই বিশ্বসুন্দরী। এই জুটি যে বেশ সুখে আছেন, তা বোঝার জন্য বেশি দূর যাওয়ার দরকার নেই। ঘরে বসে তাঁদের ইনস্টাগ্রামে একবার উঁকি দিলেই বিষয়টা পানির মতো পরিষ্কার হয়ে যাবে।

সুস্মিতা সেনের এত দিনের কর্মকাণ্ড দেখে মনে হয়েছে, তাঁর এই প্রেমে পড়াতেই আনন্দ, বিয়েতে তীব্র অরুচি। তা না হলে ৪৩ বছর বয়সে একবারও সত্যি সত্যি অগ্নিসাক্ষী রেখে বাঁধা পড়লেন না, তাই কি হয়? কিন্তু এবার ইনস্টাগ্রামের ছবি দেখে মনে হচ্ছে, বিয়েতে বোধ হয় রুচি ফিরেছে তাঁর। মনে হচ্ছে, ঘর বাঁধতে আর আপত্তি নেই এই তারকার। ইনস্টাগ্রামে শেয়ার করা ওই ছবিতে এই জুটিকে অন্য আর পাঁচটা ছবির মতোই অন্তরঙ্গ অবস্থায় দেখা গেছে। কিন্তু সেই ছবিতে সুস্মিতার অনামিকায় দেখা গেছে ঝলমলে আংটি। তাই স্বাভাবিকভাবেই পুরো বলিউডের প্রশ্ন, তবে কি বাগদান সেরে ফেললেন সুস্মিতা সেন?

শুধু ছবি পোস্ট করেই ক্ষান্ত দেননি ফিল্মফেয়ার পুরস্কারজয়ী সুস্মিতা সেন। ক্যাপশনে লিখেছেন, ‘কাউকে নিঃস্বার্থভাবে ভালোবাসা কঠিন। কারণ আমরা অনেক শর্ত দ্বারা নিয়ন্ত্রিত। তাই হৃদয়ের কথা শোনা সব সময়ই চ্যালেঞ্জিং। কিন্তু শর্তগুলো হৃৎপিণ্ডে থাকে আর বিশ্বাস থাকে হৃদয়ে। ভালোবাসা তো তখন বোনাস। আমি শর্তহীনভাবে শুধুই তোমার, রোহমান শল।’



২০০০ সালে রেনি আর ২০১০ সালে আলিশাকে দত্তক নিয়ে ‘মা’ হন সুস্মিতা সেন। ২০১৮ সালের নভেম্বরে বলিউডের এই তারকার ঘনিষ্ঠ একটি সূত্রের বরাত দিয়ে ডিএনএ জানিয়েছে, রোহমান শলকে পছন্দ করেছে রেনি ও আলিশা। দুই মেয়ে প্রেমিককে পছন্দ করায় দারুণ খুশি সুস্মিতা সেন।

সুস্মিতা সেনের সাবেক প্রেমিকদের তালিকা বেশ দীর্ঘ। তাঁদের মধ্যে ঋত্বিক ভাসিন, বিক্রম ভাট, রণদীপ হুদা, ওয়াসিম আকরাম, মানব মেনন, সাবির ভাটিয়া, বান্টি সচদেব প্রভৃতি উল্লেখযোগ্য। এই নামগুলো বলিউডের ‘পেজ থ্রি’কে যে কত গল্পের রসদ জুগিয়েছে! কিন্তু তাঁরা কেউ বাঁধতে পারেননি সুস্মিতাকে। রোহমান কি আসলেই পারবেন?

সুস্মিতার এই প্রেমিক বা ভবিতব্য স্বামী রোহমান শল ১৯৯১ সালের ৪ জানুয়ারি ভারতের উত্তর প্রদেশের নদীয়া জেলায় জন্মগ্রহণ করেন। ২২ বছর বয়সে তিনি মডেলিংয়ে ক্যারিয়ার গড়ার উদ্দেশ্যে নদীয়া থেকে পাড়ি জমান মুম্বাই। এরপর পাঁচ বছরে তিনি সব্যসাচী মুখার্জিসহ অনেক খ্যাতিমান ডিজাইনারের পোশাকে র‍্যাম্পে হেঁটেছেন। মডেল হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করেছেন নিজেকে। ৬ ফুট ১ ইঞ্চি উচ্চতার মধ্যবিত্ত মুসলমান পরিবারের এই মডেলের জীবন স্বাভাবিক নিয়মে চলছিল। কিন্তু নীতা লুলার ফ্যাশন শোত সুস্মিতা সেনের সঙ্গে পরিচয় হওয়ার পর সবকিছু বদলে যায়। এরপর উভয়ের জীবনে হঠাৎ টুপ করে প্রেম আসে। বদলে দেয় সবকিছু। সুস্মিতা সেন আগেই বলেছিলেন, রোহমান তাঁর জন্য ‘পারফেক্ট’। এখন এই ‘পারফেক্ট’ জুটি সত্যি সত্যিই সাত পাকে বাঁধা পড়েন কি না, সেটাই দেখার বিষয়।

Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement

আরও দেখুন