সদ্য সংবাদ

  সাংবাদিকদের নয়, দুর্নীতিবাজদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিন: হানিফ   পঞ্চগড়ে সাংবাদিক রোজিনার মুক্তির দাবিতে মানববন্ধন ও সমাবেশ   লোকাল বাসে ভাড়া দ্বিগুন, যাত্রি তিনগুন, দেখে না প্রশাসন!  রোজিনাকে হেনস্তা দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে সম্পাদক পরিষদের দাবি   সাংবাদিক রোজিনার বিরুদ্ধে মামলা করা উপসচিবসহ ৬ জন বদলি   ইসরায়েলকে সমর্থন দিলে ১০ বছরের জেল-জরিমানা কুয়েতে  তিউনিশিয়া উপকূলে নৌকাডুবি : ৩৩ বাংলাদেশী উদ্ধার   দুর্নীতিবাজ আমলারা কত বেপরোয়া: ড. কামাল   ডিবি পুলিশের রিমান্ডে মামুনুল হককে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু   যমুনা নদীতে ডুবে তিন জনের মৃত্যু  ‘দুর্নীতি আড়াল করতেই’ সরকার সাংবাদিকদের ‘ভয় দেখালো’  সংগ্রামের মাধ্যমে এই সম্মান এসেছে : প্রধানমন্ত্রী  ইসরাইলি যুদ্ধজাহাজে হামাসের ক্ষেপণাস্ত্র হামলা  সাইনবোর্ড ট্রাফিক বক্সের কাছে বোমা বিস্ফোরণে নিষ্ক্রিয়  গাজায় হামলার মধ্যে ইসরাইলকে আরও অস্ত্র দিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র   সাঘাটায় বিএনপি নেতাকর্মিদের ঈদ শুভেচ্ছা   ঝিনাইদহ মহাসড়ক কাঠ ব্যবসায়িদের দখলে   শ্রমিকের বেতন না দিয়ে মালিক পালাতক, সাহায্য দিলেন ডিসি   মিতু হত্যার ঘটনায় সাবেক এসপি বাবুল আক্তার গ্রেফতার  ঈদে মুক্তি পাচ্ছে অভিনেতা তনু পান্ডের ছবি "সৌভাগ্য "

জয়কে ভর্তির জন্য স্কুলে শাকিব-অপু

 Fri, Nov 16, 2018 10:36 AM
জয়কে ভর্তির জন্য স্কুলে শাকিব-অপু

এশিয়া খবর ডেস্ক:: পুত্র আব্রাম খান জয়কে ভর্তির জন্য স্কুলে নিয়ে গেছেন শাকিব খান। এ সময় শাকিবের সাথে ছিলেন অপু বিশ্বাস।

 কিন্তু স্কুল কর্তৃপক্ষ জয়কে ভর্তি করেনি। তারা জানিয়েছে অন্তত তিন বছর বয়স না হলে স্কুলে ভর্তি করানো যাবে না। সোমবার সকালে রাজধানীর বারিধারায় আমেরিকান ইন্টারন্যাশনাল স্কুল ঢাকা (এআইএসডি) স্কুলে জয়কে ভর্তির জন্য গিয়েছিলেন শাকিব ও অপু। ভর্তির জন্য ফরমও পূরণ করেছেন বাবা শাকিব ও মা অপু বিশ্বাস। কিন্তু বয়সের ক্ষেত্রে ঝামেলা তৈরি হয়। পরে স্কুল কর্তৃপক্ষের পরামর্শে ইন্টারন্যাশনাল স্কুল ঢাকা’ তে প্লে-গ্রুপে ভর্তি করা হচ্ছে জয়কে। শাকিব খান বলেন, জয়ের সুন্দর ভবিষ্যত গড়ে তোলার জন্য সব ধরনের চেষ্টা করে যাচ্ছি। আগামী বছরই এই স্কুলে তাকে ভর্তি করাতে পারব। খুবই দুষ্টুমি করে। ওর সঙ্গে সময় কাটাতে আমার খুব ভালো লাগে। মাঝে মধ্যে ওর সঙ্গে আমিও পড়তে বসে যাই। অপু বিশ্বাস বলেন, শাকিব খান জয়ের সবকিছুতেই অনেক সিরিয়াস। এত সকালে ভর্তির জন্য স্কুলে চলে আসবে, আমি ভাবতেও পারিনি। জয়ের বাবার প্রতি শ্রদ্ধা বেড়ে গেল। সকালে স্কুলের ভেতর বাবা-ছেলের খুনসুটি দেখতে বেশ ভালোই লেগেছে। আগামী বছর এই স্কুলে জয়কে ভর্তি করাতে পারব।

Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement

আরও দেখুন