সদ্য সংবাদ

 গোদাগাড়ীতে জোর করে জমি দখলের অভিযোগ  সাংবাদিকদের ঐক্য ধরে রাখতে হবে: আবুল বাশার মজুমদার   ডিইউজের সাধারণ সম্পাদক শহীদুল ইসলামের উপর হামলার নিন্দা  আইডিইবির বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ, নতুন নির্বাচন ঘোষণার দাবি  বাজেট প্রত্যাখ্যান করে বাসদের মানববন্ধন ও মিছিল  পঞ্চগড়ে সড়ক দূর্ঘটনা সহ পৃথক ঘটনায় নিহত-৩  যুগের চিন্তার বাবলার চাঁদা চাওয়ার রেকর্ড আমার কাছে আছে- আব্দুল হাই  সীতাকুণ্ডে আহত- নিহতদের জন্য জাতীয় সাংবাদিক সংস্থা’র দোয়া মাহফিল  গোদাগাড়ীতে সরকারি পুকুর ভরাট করে ধান চাষ  আন্তঃজেলা গাড়ি চোর চক্রের ৬ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পিবিআই।  ২২ দিনেও পুলিশের অগ্রগতি নেই চারঘাটের চিকিৎসক মান্নান খুনের ঘটনায়।  প্রয়াত সাংবাদিকদের রুহের মাগফেরাত কামনায় দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত  শাহরাস্তিতে মসজিদ কমিটির আধিপত্য নিয়ে সংঘর্ষে ইউপি মেম্বার লাঞ্চিত।  মাদরাসার ছাত্রকে অপহরণের রহস্য ফাঁস, গ্রেপ্তার ১  ঝিনাইদহে নিম্নমানের ইট দিয়ে সড়ক সংস্কার, পালিয়ে গেলেন প্রকৌশলী  গাইবান্ধা এলজিইডির আওতায় ৯টি ব্রীজের নির্মাণ কাজ চলছে  বন্দরে খেলাফত মজলিসের ঈদ সামগ্রী বিতরণ   অভিনয়ে পা রাখলেন পান্ডের ছেলে প্রতীক  থাইল্যান্ডে মাসব্যাপি ইফতার আয়োজন করেছেন প্রবাসীরা।  তনু পান্ডের পরিচালনায় নতুন প্রযোজক রবি

বিক্রি হয়ে গেলো মাইকেল জ্যাকসনের সেই আলিশান বাগানবাড়িটি

 Fri, Dec 25, 2020 8:54 PM
 বিক্রি হয়ে গেলো মাইকেল জ্যাকসনের সেই আলিশান বাগানবাড়িটি

এশিয়া খবর ডেস্ক:: পপ তারকা মাইকেল জ্যাকসনের স্মৃতিবিজরিত 'দি নেভারল্যান্ড র‍্যাঞ্চ'

 বাগানবাড়িটি বিক্রি হয়ে গেলো। এই পপতারকা চলে যাওয়ার পর দীর্ঘদিন ধরেই বিক্রির চেষ্টা চলছিলো আলিশান এই বাড়িটি। ক্যালিফোর্নিয়ার সান্তা মারিয়ায় অবস্থিত বিলাসবহুল বাড়িটি ২২ মিলিয়ন মার্কিন ডলারে কিনে নিয়েছেন তারই বন্ধু রন বার্কল।

জ্যাকসনের এই বাড়িটি দুই হাজার ৭০০ একর ( ১১ শ’ হেক্টর) জমির উপর  নির্মিত। এর আগে ২০১৫ সালে বাড়িটির দাম উঠেছিল ১০০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার। সেই দামের তুলনায় বাড়িটি ন্যায্য দামের চার ভাগের একভাগ দামে বিক্রি করা হয়েছে। সবশেষ গত বছর বাড়িটির দাম উঠে ৩১ মিলিয়ন ডলার।

মাইকেল জ্যাকসন ১৯৮৭ সালে এই অট্টালিকাটি কিনেছিলেন সাড়ে ১৯ মিলিয়ন ডলারে। তখন এই টাকা পরিশোধ করতে তাকে বহু কষ্ট করতে হয়েছে।

পপসম্রাট বাড়িটি তিল তিল করে মনের মত করে করে গড়ে তুলেছিলেন। এই কম্পাউন্ডে রয়েছে- রেললাইন, অগ্নিসহায়তা কেন্দ্র ও বিস্তীর্ণ বাগান। একটি চিড়িয়াখানাও ছিল, যেখানে শিশু-কিশোররা আসা যাওয়া করত।

পরে জেএম ব্যারির পিটার প্যান গল্পে অনুপ্রাণিত হয়ে এটিকে শিশুদের বিনোদন কেন্দ্রে রূপ দেন শিল্পী। পাশাপাশি এখানে বসবাসও করতেন। কয়েক বছর আগে বাড়িটির নাম পাল্টে ‘সাইকামোর ভ্যালি র‌্যাঞ্চ’ রাখা হয়।

মূল ভবনে ৬টি শয়ন ঘর, ৯টি বাথরুম, একটি বড় বেডরুম ও দুটি বড় টয়লেটসহ একটি চিলেকোঠা রয়েছে। ভেতরে লেক, সুইমিং পুলসহ খেলার ব্যবস্থা রয়েছে। এছাড়া রয়েছে একটি বিশাল থিয়েটার হল।

১৯৮২ সালে বাড়িটির স্থাপত্যশৈলীর নকশা করেছিলেন রবার্ট অলটেভার্স। মাইকেল জ্যাকসন বাড়িটিতে অবসরে একান্তে সময় কাটাতেন।এই বাড়িতেই তিনি শিশু যৌন নির্যাতন করেছিলেন বলে অভিযোগ ওঠে। একবিংশ শতাব্দীর গোড়ার দিকে এই বাড়িতে শিশু নির্যাতনের অভিযোগ এনে তদন্ত করা করা হয়।

‘লিভিং নেভারল্যান্ড’ নামের একটি তথ্যচিত্র প্রচারের পর মাইকেল জ্যাকসনকে প্রশ্নের মুখোমুখি হতে হয়। এটি একটি ব্রিটিশ-আমেরিকান ডকুমেন্টারি ফিল্ম। তথ্যচিত্রটি পরিচালনা করেছেন ব্রিটিশ চলচ্চিত্র নির্মাতা ড্যান রিড। এতে জ্যাকসনের বিরুদ্ধে শিশু নির্যাতনের অভিযোগ আনা হয়। তবে মাইকেল জ্যাকসনের পরিবার তাদের অভিযোগ অস্বীকার করেন। তার বিরুদ্ধে মামলাও হয়। ২০০৫ সালে ওই মামলা থেকে খালাস পান মাইকেল জ্যাকসন। এ ঘটনার পর তিনি প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন, আর কখনো নেভারল্যান্ডে ফিরে যাবেন না।

২০০৯ সালে ৫০ বছর বয়সে অতিরিক্ত ওষুধ গ্রহণের প্রতিক্রিয়ায় মাইকেল জ্যাকসনের মৃত্যু হয়। তার মৃত্যুর পরই বিক্রির সিদ্ধান্ত হয় বিশাল এই বাড়িটি।

Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement

আরও দেখুন